হোসোনোর পদত্যাগ পত্র গৃহীত, ডিপিজেতে নাওতো কানের সদস্য পদ স্থগিত
টোকিও-এইদেশ,, সোমবার, জুলাই ২৯, ২০১৩


ডেমোক্র্যাটিক পার্টি অব জাপান (ডিপিজে)র আইনপ্রণেতারা দলের মহাসচিব গোশি হোসোনোর পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করেছেন। অগাষ্টের শেষ পর্যন্ত তিনি দলের মহাসচিব পদে থাকবেন। এরপর পদত্যাগ পত্র কার্যকর হবে।

জাপানের প্রধান বিরোধী দলটি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দলের সাবেক প্রধান নাওতো কানের সদস্য পদ ৩ মাসের জন্যে স্থগিত করেছে এবং দলে তার প্রধান উপদেষ্টা পদটিও কেড়ে নেয়া হয়েছে। ডিপিজের শীর্ষ নেতারা দলের নৈতিক কমিটির বৈঠকে শুক্রবার এই সিদ্ধান্ত নেন।

"মহাসচিবকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হয় এবং একবার যখন আমি পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছি তাই আমার আর এই গুরুত্বপূর্ণ পদটিতে থাকা উচিত না" -হোসোনো দলের প্লিনারারি বৈঠকে ডিপিজে আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন।

উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সালের পর দলের উচ্চকক্ষে সবচেয়ে শোচনীয় পরাজয়ের দায়ভার নিয়ে হোসোনো পদত্যাগ করেন।

হোসোনো অননুমোদিত ভাবে জাপান পুনর্গঠন পার্টির মহাসচিব ইয়োরিহিসা মাৎসুনো এবং ইয়োর পার্টির মহাসচিব কেনজি এদা'র সাথে বৈঠক করে একটি "স্টাটি গ্রুপ" গঠন করেন। যেটিকে অনেকেই নতুন দল গঠনের পাঁয়তারা হিসেবে সন্দেহ করেন।

গত বুধবার দলের নির্বাহীদের বৈঠকে হোসোনো দলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে আরো সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হন। বর্তমান প্রেসিডেন্ট বানরি কাইয়েদা'কে উপেক্ষা করতেই তিনি এ ধরণের মন্তব্য করেন বলে মনে করা হচ্ছে।

অপর দিকে গত উচ্চকক্ষের নির্বাচনের সময় কান দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গিয়ে দল সমর্থন প্রত্যাহার করে নেয়া প্রার্থীকে সমর্থন দেন।

সপ্তাহের গোড়াতে দল কানের বিরুদ্ধে আরো কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছিলো। তারা তাকে দল থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নিতে চেয়েছিলেন। তবে তার বিরুদ্ধে কী ধরণের ব্যবস্থা নেয়া হবে তা নিয়ে সদস্যরা মতৈক্যে পৌঁছুতে পারেননি।