টোকিওতে সাহিত্য সভা
টোকিও-এইদেশ, রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৩


রোববার দুপুর ২টায় টোকিওর শিবুইয়া কোরিৎসু কিনরোউ ফুকুশি কাইকানে বাংলাদেশ সাংবাদিক লেখক ফোরাম -জাপান'র উদ্যোগে আয়োজন করা হয় সাহিত্য সভা।

সাহিত্য সভায় স্বরচিত বা অন্যের লেখা পাঠ সহ সাহিত্যের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। এ ছাড়াও মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক লেখক ফোরামের উপেদেষ্টা মনজুরুল হক এবং সভাপতি জুয়েল আহসান কামরুল।

ফোরামের সাবেক সভাপতি বাকের মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন -মাসুদ বিন মোমেন, মনজুরুল হক, রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী সোমা ফাহমিদা জাবীন, ছালেহ মোঃ আরিফ, মীর রেজাউল করিম রেজা, বাকের মাহমুদ, কাজী ইনসানুল হক, মঈনুল ইসলাম মিল্টন, নাজিম উদ্দিন, জেড এম আবুসিনা, মইনুল শাওন, মোতাহের হোসেন, শরাফুল ইসলাম, আব্দুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, কমল বড়ুয়া এবং কামরুল হাসান লিপু।

রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন তাঁর বক্তব্যে বলেন, প্রবাসী লেখকদের লেখা সংরক্ষণ করার একটি উদ্যোগ হাতে নেয়া হয়েছে। তাই যাদের লেখা ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে তারা যদি আগ্রহী হন তাহলে দূতাবাস সেগুলোকে সংরক্ষণ করার চেষ্টা করবে। তিনি জানান, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে যে সব জাপানি বন্ধু অবদান রেখেছেন সরকার তাদেকে পুরস্কৃত করতে চান। কিন্তু তাদের সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্যের অভাব রয়েছে। তারপরও চেষ্টা করা হচ্ছে এসব বিদেশী বন্ধুদের সম্পর্কে জানার।

রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী সোমা ফাহমিদা জাবীন বলেন, মানুষ তার আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলতে বিব্রত বোধ করেন। পাঠ্যপুস্তকের ভাষা না হয়ে মানুষের ভাষা থাকা উচিত তার মনের ভাবের মত। যিনি যেভাবেই তার মনের ভাব প্রকাশ করুন না কেন তার থেকে আমরা অনেক কিছু জানতে পারি। আমাদের সেটিই গ্রহণ করার মানসিকতা থাকা উচিত।

মনজুরুল হক, চে গেভারা'র উপর লেখা তিনটি বিদেশি কবিতার বঙ্গানুবাদ পড়ে শোনান।

ফোরামের সভাপতি জুয়েল আহসান কামরুল ফোমামের পক্ষ থেকে সমাপনি বক্তব্য রাখেন। তিনি সবাইকে সভায় আসার জন্যে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

ছুটির বিকেলে হল ভর্তি প্রবাসী উপস্থিত হন অনুষ্ঠানটি দেখতে। অনেকেই বলেন, যেখানে দেশের বড় বড় সাহিত্য সভা গুলোতেই সামান্য সংখ্যক মানুষ উপস্থিত থাকেন -সেখানে প্রবাসে এতো সংখ্যক মানুষের উপস্থিতি খুবই উৎসাহব্যঞ্জক।

সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে বিকেল ৫টায় সাহিত্য সভার পরিসমাপ্তি ঘটে।