ফুকুশিমার স্টোরেজ ট্যাঙ্কে সর্বোচ্চ মাত্রার তেজস্ক্রিয়তা ধরা পড়লো
টোকিও-এইদেশ, শনিবার, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৩


টোকিও ইলেক্ট্রিক পাওয়ার কোম্পানি ফুকুশিমা দাইইচি আণবিক প্ল্যান্টের চুল্লী ঠান্ডা করার কাজে ব্যবহৃত পানি জমা রাখার ট্যাঙ্কের নিকট এ পর্যন্ত প্রাপ্ত সর্বোচ্চ মাত্রার তেজস্ক্রিয়তার সন্ধান পেয়েছে।

মঙ্গলবাব্র তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ ছিলো প্রতি ঘন্টায় ২,২০০ মিলিসিভার্ট (২.২ সিভার্ট)। শনিবার একই স্থানে ১,৮০০ মিলিসিভার্ট তেজস্ক্রিয়তা পাওয়া যায়। টেপকোর মুখপাত্র মাইউমি ইয়োশিদা বুধবার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, স্থানটি একটু আলাদা হওয়ার কারণে তেজস্ক্রিয়তা পরিমাপের যন্ত্র তেজস্ক্রিয়তা বেশি দেখাতে পারে।

"আপনি সামান্য একটু নড়লেই তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা ওঠানামা করে, কাজেই উচ্চ তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা বৃদ্ধির অর্থ তেজস্ক্রিয়তা নির্গমনের পরিমান বেড়ে যাচ্ছে -বিষয়টি এমন নাও হতে পারে" ইয়োশিদা বলেন।

সরকারের গাইডলাইন অনুসারে মঙ্গলবার প্রাপ্ত তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা ৪৪ জন প্ল্যান্ট কর্মী সারা বছর সর্বোচ্চ যে পরিমাণ তেজস্ক্রিয়তা গ্রহণ করেন তার সমান।

সপ্তাহান্তে প্রাপ্ত ১.৮ সিভার্ট তেজস্ক্রিয়তার মধ্যে কেউ ৪ ঘন্টা অবস্থান করলে তার মৃত্যু ঘটতে পারে।

গত মাসে একটি স্টোরেজ ট্যাঙ্ক থেকে ৩০০ টন তেজস্ক্রিয় পানি বেরিয়ে যাওয়ার পর টেপকো ট্যাঙ্ক পরিদর্শনের সংখ্যা ২ বারের স্থলে ৪ বার এ উন্নীত করে। এ ছাড়াও, পরিদর্শনের স্টাফ সংখ্যা আগের ১০ থেকে বাড়িয়ে ৬০ জন পর্যন্ত করেছে।