জাপানের ৮টি প্রিফেকচার থেকে মৎসজাত পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ করলো দক্ষিণ করিয়া
টোকিও-এইদেশ, শনিবার, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৩


দক্ষিণ কোরিয়া জাপানের ৮টি প্রিফেকচার থেকে সকল ধরণের মৎসজাত পণ্য আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ফুকুশিমা দাইইচি পারমাণবিক চুল্লী থেকে তেজস্ক্রিয় পানি নির্গমন এবং তা সাগরের পানিতে মিশে যাওয়ার আশংকা থেকেই তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়া এই ৮টি প্রিফেকচারের ৫০ ধরণের মৎসজাত পণ্যের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিলো। তারা এখন বলছেন, জাপানের অন্যান্য স্থান থেকেও আমদানিকৃত মৎসজাত পণ্যের তেজস্ক্রিয়তা আরো কড়াকড়ি ভাবে পরীক্ষা করা হবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একজন মুখপাত্র শুক্রবার বলেন, "ফুকুশিমা পারমাণবিক দুর্ঘটনাস্থল থেকে শত শত টন তেজস্ক্রিয় পানি সাগরে গিয়ে পড়ার ফলে জনমনে উদ্বেগ বৃদ্ধি পেয়েছে।"

নতুন নিষেধাজ্ঞা সোমবার থেকে কার্যকর হবে এবং অনির্দিষ্টিকাল পর্যন্ত বহাল রাখা হবে। দেশটির সহকারি মৎসসম্পদ মন্ত্রী সন জায়ে-হাক সাংবাদিকদেরকে বলেন, পরিস্থিতি যাচাইয়ের জন্যে জাপান থেকে প্রাপ্ত তথ্য খুব একটা ভালো নয়।

দক্ষিণ কোরিয়া গত বছর জাপানের ৮টি প্রিফেকচার থেকে ৫ হাজার টন মৎসজাত পণ্য আমদানি করে। জাপান থেকে তাদের মোট মৎসজাত পণ্য আমদানির পরিমাণ ৪০ হাজার টন।

আটটি প্রিফেকচার হলো- ফুকুশিমা, মিয়াগি, ইওয়াতে, আওমোরি, চিবা, ইবারাকি, তোচিগি এবং গুনমা।